আগের ম্যাচে সাউদাম্পটনের কাছে ২-১ গোলে হেরে যাওয়া চেলসি আজও ঘরের মাঠে ছিলো হারের দারপ্রান্তে। তবে বদলি নামা চিলওয়েল ও কাই হার্টজের গোলে হারতে থাকা ম্যাচটি জিতে মাঠ ছাড়ে চেলসি।

নিজেদের মাঠে বল দখলে চেলসি পুরো ম্যাচে আধিপত্য দেখালেও লক্ষ্যে শট নেওয়ার পরিসংখ্যানে দুদলই ছিলো সমান। উভয় দল মাত্র তিনটি করে শট রাখতে পারে লক্ষ্যে।

ওয়েস্ট হ্যামের বিপক্ষে সুখকর সব পরিসংখ্যান নিয়ে মাঠে নামা চেলসি ম্যাচের প্রথামার্ধে করতে পারেনি কোনো গোল। গোল করতে পারেনি সফরকারী দলটিও। গোলশূন্য প্রথামার্ধের পর দ্বিতীয়ার্ধের ৬৩তম মিনিটে স্বাগতিক দর্শকদের স্তব্ধ করে দেন ওয়েস্ট হ্যাম স্ট্রাইকার অ্যান্তোনিও। এর আগে ৫৪তম মিনিটে চেলসি ফুটবলার রিস জেমসের সাথে ঝামেলা বাঁধিয়ে দুজনেই দেখেন হলুদ কার্ড। পুরো ম্যাচে আজ দুদলের খেলোয়াড়দের আধা ডজন হলুদ কার্ড দেখান চেলসি।

গোল হজম করার মিনিট দশেক পর এক সাথে দুটি বদল আনেন চেলসি কোচ টুখেল। চিলওয়েল ও কাই হার্টজকে মাঠে নেমে বদলে দেন ম্যাচের দৃশ্যপট। বদলি নেমে মাত্র চার মিনিট পর গোল করে দলকে সমতায় ফেরান চিলওয়েল। ৮৮তম মিনিটে দলের জয়সূচক গোলেও অবদান রাখেন চিলওয়েল। তার ক্রস থেকে বল জালে পাঠান কাই হার্টজ।

পরের মিনিটে অবশ্যই গোল শোধ করে দেয় সফরকারীরা। তবে ভিএআর দেখে গোলটি বাতিল করে দেন রেফারি।

ম্যাচের বাকি সময়ে আর কেউ গোল করতে না পারলে ২-১ গোলের স্বস্তির জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে চেলসি।

৬ ম্যাচের তিনটিতে জয় ও এক ড্রতে ১০ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকার পাঁচে আছে চেলসি। আরেক ম্যাচে এভারটনের সাথে গোলশূন্য ড্র করা লিভারপুলের অবস্থান এক ধাপ পরে, ছয়ে।


সর্বশেষ খবর পেতে আমাদের Google News ফিডটি ফলো করুন