যেকোনো ইভেন্টের ফাইনাল মানে বাংলাদেশ সমর্থকদের মনে থাকে হারের ভয়। আর প্রতিপক্ষ যদি ভারত হয় তাহলেতো আর কোনো কথায় নেই। কারণ এই ভারতের কাছে কম ফাইনাল হারতে হয়নি বাংলাদেশকে। ফাইনাল হারের ধারাবাহিকতায় সাফ অনুর্ধ্ব-২০ চ্যাম্পিয়ন্সশিপের ফাইনালেও আশা জাগিয়ে হতাশ করেছে বাংলাদেশ। নির্ধারিত সময়ে যেভাবে লড়াই করেছে অতিরিক্ত সময়ে ঠিক সেভাবে হেরেছে বাংলাদেশের যুবারা।

২০১৯ সালে অনূর্ধ্ব-১৮ সাফের ফাইনালে বাংলাদেশকে ২-১ গোলে হারায় ভারত। এবার অনুর্ধ্ব ২০ চ্যাম্পিয়ন্সশিপে রাউন্ড রবিন লিগের ম্যাচে একই ব্যবধানে ভারতকে হারায় বাংলাদেশ। পুরো টুর্ণামেন্টে দূর্দান্ত খেলে বাংলাদেশ। ফাইনালে প্রতিপক্ষ হিসেবে পেয়েছিলো ভারতকে। সুযোগ ছিলো ফাইনালে হারিয়ে প্রতিশোধ নেওয়ার। তবে তা হলো না। অতিরিক্ত সময়ের নয় মিনিটে মৃত্যু ঘটে বাংলাদেশের শিরোপা জয়ের।

ভারতের কালিংগা স্টেডিয়ামে শুরুতে গোল হজম করে বসে বাংলাদেশ। ম্যাচের মাত্র ২য় মিনিটে হিমাংশুর দূরপাল্লার শট বাংলাদেশ গোলরক্ষক আসিফ ঠেকালেও গ্লাভসে আটকাতে পারেনি। বক্সের ভেতর থাকা বলের দিকে ছুটে আসেন গুরকিরাত। বল ক্লিয়ার করতে গিয়ে ভারতীয় ফরোয়ার্ডকে ফাউল করে বসেন আসিফ। তাতে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। পেনাল্টি থেকে গোল করে স্বাগতিকদের এগিয়ে দেন গুরকিতার সিং। গোল হজম করে একটু এলোমেলো খেলা বাংলাদেশ নিজেদের গুছিয়ে নিতে খুব বেশিক্ষণ সময় নেয়নি। পাল্টা আক্রমন করতে থাকে লাল সবুজরাও।

বিরতিতে যাওয়ার আগেই সমতায় ফেরে বাংলাদেশ। ৪৫ মিনিটে রফিকুলের কাটব্যাকে বক্সের ভেতর থেকে ডান পায়ের গতির শটে জাল খুঁজে নেন রাজন হাওলাদার। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুটা দারুণ করে বাংলাদেশ। ভারতের রক্ষণে প্রবল চাপ দিয়ে এগিয়ে যায় পল স্মলির দল। ৪৮ মিনিটে নিজেদের অর্ধ থেকে ইমরানের লম্বা বল গিয়ে পড়ে ভারতের বক্সে,স্বাগতিকদের এক ডিফেন্ডার ক্লিয়ার করার চেষ্টা করলে পিয়াসের মাথায় লেগে চলে যায় শাহীনের পায়ে। দেখে-শুনে বাম পায়ের গতির শটে লক্ষ্যভেদ করেন ডিফেন্ডার শাহীন মিয়া।

তবে ৫৯তম মিনিটে গুরকিরাত সিংয়ের বুলেট গতির শট জালে জড়ালে আবারও সমতা আসে ম্যাচে। এরপর নির্ধারিত সময়ে আর কোনো দল গোল করতে না পারলে ২-২ ড্র হয় ম্যাচ।

অতিরিক্ত সময়ে আর প্রতিরোধ গড়তে পারেনি বাংলাদেশের যুবারা। মাত্র নয় মিনিটে তিন গোল হজম করলে স্কোরলাইন ২-৫ হয়।

ভারতের হয়ে হ্যাট্রিক করেন গুরকিরাত সিং। চার ম্যাচে মোট ৮ গোল করে টুর্ণামেন্টের সর্বোচ্চ গোলদাতার পুরুষ্কারও জিতেন এই ভারতীয় ফরোয়ার্ড।


সর্বশেষ খবর পেতে আমাদের Google News ফিডটি ফলো করুন