বর্তমানে যেকোনো ফরমেটে বাংলাদেশের সবচেয়ে সেরা ও নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান লিটন কুমার দাস। চলতি বছরে লিটনের চাইতে বেশি রান করতে পারেনি বিশ্বের কোনো ব্যাটসম্যান।

শুক্রবার জিম্বাবুয়ের বিপক্ষেও লিটন ছিলেন ছন্দে। ওয়ানডেতে নিজের ৬ষ্ঠ অর্ধশতক করার পর চড়া হতে থাকেন প্রতিপক্ষের বোলারদের উপর। এক সময় উঁকি দিচ্ছিলো সেঞ্চুরিও৷ তবে ৮৯ রানে ৮১ রানের নান্দনিক ইনিংসটা থেমে যায় চোটের কারণে। সিকান্দার রাজাকে কুইক সিঙ্গল নিতে যেয়ে হ্যামস্ট্রিংয়ের চোট পাওয়ায় থামতে হয়েছে তাকে। পড়ে যাওয়ার পর দাঁড়িয়ে উঠতে পারেননি লিটন দাস। স্ট্রেচারে শুয়েই মাঠ ছাড়তে হয়েছে ডানহাতি এই ওপেনারকে।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে হেরে যাওয়ার পর পুরষ্কার বিতরণীয় অনুষ্ঠানে লিটনের চোট নিয়ে অধিনায়ক তামিম ইকবাল শুনিয়েছিলেন শঙ্কার কথা-‘আমি যতদূর শুনতে পেরেছি, গোটা সফরেই সম্ভবত আর লিটনকে পাওয়া যাবে না। সিরিজ শেষ হয়ে গেছে তার।’

তবে তামিমের চাইতেও বড় দূঃসংবাদটা পাওয়া গেলো টিমের ফিজিও মোজাদ্দেদ সানির দেওয়া ভিডিও বার্তায় স্ক্যানের পর লিটনের গ্রেড ‌’টু’ মাসল স্ট্রেইন ধরা পড়েছে। তা থেকে সরে উঠতে তিন থেকে চার সপ্তাহ সময় লাগবে। বলে জানান তিনি।

এতে অনেকটা পরিষ্কার সর্বশেষ এশিয়া কাপের ফাইনাল ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ানকে এবার হয়তো দেখা যাবে না এশিয়া কাপে।

আগামী সোমবার এশিয়া কাপের জন্য দল ঘোষণা করার কথা বিসিবির। অধিনায়কের জন্য যে চারজনকে প্রাথমিকভাবে নির্বাচন করেছিলো বোর্ড সেখানে ছিলো লিটন কুমার দাসের নামও।

 


সর্বশেষ খবর পেতে আমাদের Google News ফিডটি ফলো করুন