আগামী জানুয়ারি থেকে শুরু হতে যাওয়া আরব আমিরাত লিগে প্রচুর অর্থ নিয়ে নামছে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো। মোটা অঙ্কের পারিশ্রমিকের পাশাপাশি এই টুর্নামেন্টে অংশ নেওয়া ক্রিকেটারদের সঙ্গে চুক্তি করা হবে তিন বছর মেয়াদি। তাই বেশিরভাগ খেলোয়াড়দের আগ্রহ এই টুর্ণামেন্টটিকে ঘিরে। অষ্টেলিয়ার ওপেনার ডেভিড ওর্য়ানারও আছেন সে তালিকায়। নিজ দেশের লিগ বিবিএল বাদ দিয়ে তিনিও চেয়েছিলেন আরব আমিরাতের লিগে খেলতে। কারণটাও পরিস্কার, সেখানে পারিশ্রমিক অনেক বেশি বিবিএল এর তুলনায়।

২০১৩ সালের পর থেকে নিজ দেশের লিগ বিবিএল খেলছেন না ওর্য়ানার। এবারও সে পথে হাঁটতে চেয়েছিলেন। তবে দি এজ’ পত্রিকার খবর অনুযায়ী বিগ ব্যাশের ফ্রাঞ্চাইজি সিডনি থান্ডার্সের হয়ে আগামী আসরে খেলবেন ওয়ার্নার। পাবেন মোটা অঙ্কের পারিশ্রমিকও। ধারণা করা হচ্ছে ওয়ার্নারকে ৩ লাখ ৪০ হাজার ডলার মতো পারিশ্রমিক দিবে ফ্রাঞ্চাইজিটি। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা ৩ কোটি ২২ লাখ টাকার সমান।

সিডনি থান্ডার্সে ওসমান খাজার জায়গায় খেলবেন ওয়ার্নার। নতুন মৌসুমে ওসমান চুক্তিবদ্ধ হয়েছে ব্রিসবন হিটের সাথে।

সব ঠিকঠাক থাকলে সিডনির হয়ে আপাতত পাঁচটি ম্যাচ খেলবেন ওর্য়ানার তা এক প্রকার নিশ্চিত।

 

ওয়ার্নারের আইপিলের দল দিল্লির মালিক আরব আমিরাতেও দল কিনলে সে দলের হয়ে খেলার কথা ছিলো ওয়ার্নারের। তবে ক্রিকেট অষ্টেলিয়া ও সিডনি থার্ন্ডাসের যৌথ প্রচেষ্টায় বিবিএল খেলতে রাজি করানো গেলে এই বাঁহাতি ওপেনারকে।

ওয়ার্নারের মতো একজন ক্রিকেটার বিবিএলে খেললে তা টুর্নামেন্টটির জন্য ক্রিকেটীয় ও অর্থনৈতিক উভয় দিক থেকেই ইতিবাচক হবে বলে দেশটির ক্রিকেট বিশ্লেষকরা মনে করছেন।


সর্বশেষ খবর পেতে আমাদের Google News ফিডটি ফলো করুন