আগামী রবিবার (১১ই সেপ্টেম্বর) নিউজিল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার তৃতীয় ওয়ানডে ম্যাচটিই হবে অ্যারন ফিঞ্চের ক্যারিয়ারের শেষ ওয়ানডে ম্যাচ। আজ এমনটাই ঘোষণা করেছেন ৩৫ বছর বয়সী এই অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক।

এক বিবৃতিতে অ্যারন ফিঞ্চ বলেছেন, “পরবর্তী ওয়ানডে বিশ্বকাপের জন্য নতুন কোন নেতাকে খোঁজার সময় এসেছে। আমার ক্যারিয়ার জুড়ে ছিল কিছু অসাধারণ ও অবিশ্বাস্য স্মৃতি যা কখনোই ভুলবো না।”

অনেকদিন ধরেই রান খড়ায় ভুগছিলেন অ্যারন ফিঞ্চ। বড় কোন সংগ্রহের দেখাচ্ছিলেন না তিনি। চলতি বছর ব্যাট হাতে ১৩টি ওয়ানডে খেলে ১৩ গড়ে সংগ্রহ করেছেন মাত্র ১৯৬ রান। যেখানে পাঁচবারই আউট হয়েছেন শূন্য রানে। এজন্যই হয়তো তিনি তার ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ইতি টেনে দিলেন। তবে ওয়ানডে থেকে অবসর নিলেও তিনি তার টি-টোয়েন্টি খেলা চালিয়ে যাবেন। গতবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অ্যারন ফিঞ্চের নেতৃত্বে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল অস্ট্রেলিয়া।

২০১১ সালের শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে অভিষেক হয়েছিল অ্যারন ফিঞ্চের। এখন পর্যন্ত তিনি অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ১৪৫টি ম্যাচ খেলেছেন। সেখানে তিনি ৩৯ গড়ে করেছেন ৫ হাজার ৪০০ রান। এর মধ্যে ১৭ টি সেঞ্চুরিও হাকিয়েছেন তিনি। ২০১৮ সালে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে অধিনায়কত্বের দায়িত্ব পান অ্যারন ফিঞ্চ। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ৫৪ টি ম্যাচে অধিনায়কত্ব করে ৩০টি ম্যাচেই জয় পেয়েছে অ্যারন ফিঞ্চ। তবে অ্যারন ফিঞ্চের ব্যাটিং ফর্মের উন্নতি না হলে হয়তো দ্রুতই টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটকেও বিদায় বলবেন তিনি।


সর্বশেষ খবর পেতে আমাদের Google News ফিডটি ফলো করুন