উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে গ্রুপপর্বের প্রথম ম্যাচে জয় দিয়ে রাঙ্গালেও দ্বিতীয় ম্যাচে এসে হারের তিক্ত স্বাদ পেলো ইংলিশ জায়ান্ট টটেনহ্যাম। আজ পর্তুগাল ক্লাব স্পোর্টিং লিসবনের ঘরের মাঠে স্বাগতিকের কাছে ২-০ গোলে হেরেছে টটেনহ্যাম। গোল দুটি হজম করেছে ম্যাচের শেষ মিনিট ও যোগ করা সময়ে।

পুরো ম্যাচে বল দখল ও আক্রমনভাগে প্রায় সমানতালে লড়াই করেছে দুদল। তবে একেবারে শেষ মুহূর্তে গোল করে দলকে জেতান স্পোর্টিং লিসবনের দুই বদলি ফুটবলার পাউলিনহো ও আর্থুর।

ম্যাচের ৭ম মিনিটে এসওয়ার্ডসের দারুণ ফিনিশিং ঠেকিয়ে দেন টটেনহ্যাম গোলরক্ষক লরিস। বিরতিতে যাওয়ার আগে যোগ করা সময়ে একেবারে সহজ একটি সুযোগ হাতছাড়া করে স্পোর্টস লিবসন। এবারও ত্রাণকর্তা হয়ে দলকে বাঁচিয়ে দেন লরিস ৷

৫৮তম মিনিটে রির্চালিসনের নেওয়া কোনাকুনি শট ফিরিয়ে গোলবারের পাশ দিয়ে অতিক্রম করে। ৮৯ তম মিনিটে আরো একটি নিশ্চিত গোল বাঁচিয়ে টটেনহ্যামকে ম্যাচে রাখেন ফরাসি গোলরক্ষক।

তবে ৭৬ তম মিনিটে বদলি হিসেবে নামা পর্তুগিজ তরুণ পাউলিনহো নির্ধারিত মিনিটের শেষ সময়ে গোল করে দলকে লিড এনে দেন। কর্ণার থেকে উড়ে আসা বলে হেড করে জালে পাঠান তিনি। গোলরক্ষক লরিসসহ বাকিরা তাকিয়ে দেখেন শুধু দৃশ্যটি। ম্যাচে যোগ করা অতিরিক্ত সময়ে বদলি হিসেবে নামেন আর্থুর।

আগের গোলদাতা পাউলিনহোর পাসে বল নিয়ে টটেনহ্যামের দুইজন ফুটবলারকে কাটিয়ে ডি বক্সে ঢুকে পড়েন আর্থুর। দারুণ ফিনিশিংয়ে টটেনহ্যামের কফিনে ঠুকে দেন শেষ পেরেকটি।

গ্রুপ পর্বের দুই ম্যাচের দুটিতে জিতে শীর্ষে আছে স্পোর্টিং লিসবন, এক জয় ও এক হারে দুইয়ে টটেনহ্যাম।


সর্বশেষ খবর পেতে আমাদের Google News ফিডটি ফলো করুন