বার্য়ানের মাঠে এর আগে কখনও দলটির বিপক্ষে জিতেনি বার্সেলোনা। বার্য়ান মিউনিখের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে দলকে সাহস জোগাতে বার্সা কোচ জাভি বলেছিলেন, ❝ওটা ভূতের বাড়ি নয়, বার্য়ান মিউনিখ!❞  তবে ম্যাচে দেখা গেলো ভিন্ন চিত্র। বার্য়ানের মাঠে বার্সেলোনা ফুটবলারদের মাঝে চেপে বসেছিলো গোল মিস করার ভূত। যার খেসারত দিতে হয়েছে জাভির দলকে।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে গ্রুপপর্বে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে বার্য়ান মিউনিখের কাছে ২-০ গোলে হেরেছে বার্সেলোনা। বার্য়ানের হয়ে গোল দুটি করেছেন লুকা হার্নান্দেজ ও লেরয় সানে।

পুরো ম্যাচে আক্রমনাত্মক ফুটবল খেলা দলটি তালগোল পাকিয়ে প্রতিপক্ষের ডি-বক্সে গিয়ে। কখনো রাফিনিয়া, লেভানডফস্কিরা গোল মিস করেছেতো আবার কখনো বাঁধা হয়ে দাঁড়িয়েছে বার্য়ান গোলরক্ষক ম্যানুয়েল ন্যায়ার।

ম্যাচের ৯ম মিনিটে প্রায় এক প্রকার গোল পেয়ে গিয়েছিলো বার্সেলোনা। তবে মিডফিল্ডার পেদ্রির শট নিজের বাঁ পায়ে ঠেকান ন্যায়ার। ১৮তম মিনিটে ন্যায়ারকে একা পেয়েও বল উড়িয়ে মারেন লেভানডফস্কি। ম্যাচের ২১তম মিনিটে লেভানডফস্কির হেড অবিশ্বাস্যভাবে ঠেকিয়ে দেন ন্যায়ার।

প্রথমার্ধে এভাবেই একের পর এক সুযোগ হাতছাড়া হয় জাভির দলের। যার মাশুল দিতে হয়েছ দ্বিতীয়ার্ধে। বিরতির পর মাঠে নেমে বার্সেলোনার উপর ঝড় বয়ে দেন বার্য়ানের আক্রমনাভাগ। ফলও পেয়ে যায় হাতে নাতে। ৫০তম মিনিটে কর্ণার থেকে উড়ে আসা বলে হেড করে দলকে এগিয়ে নেন বদলি নামা হার্নান্দেজ।


৫৪তম মিনিটে দূর্দান্তভাবে বল নিয়ে এগিয়ে আসা মুসিয়ালার পাস থেকে বল পেয়ে এগিয়ে আসতে থাকা বার্সেলোনার গোলরক্ষককে ফাঁকি দিয়ে বল জালে পাঠান সানে। মাত্র চার মিনিটে দুই গোল হজম করে লন্ডভন্ড হয়ে যায় বার্সেলোনা ফুটবলারদের আত্মবিশ্বাস। এরপর আরো কয়েকটি সুযোগ আসে উভয় দলের সামনে তবে গোল মিসের মহড়ায় শেষ হয় ম্যাচ।

‘সি’ গ্রুপে ২ ম্যাচে ৩ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে বার্সা। সমান ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে বায়ার্ন মিউনিখ। গ্রুপের আরেক ম্যাচে ভিক্টোরিয়া প্লজেনকে ২-০ গোলে হারায় ইন্টার মিলান। ২ ম্যাচে ৩ পয়েন্ট নিয়ে তিনে ইন্টার। সমান ম্যাচ থেকে কোনো পয়েন্ট না পাওয়া তলানিতে প্লজেন।


সর্বশেষ খবর পেতে আমাদের Google News ফিডটি ফলো করুন