চ্যাম্পিয়ন্স লিগে নাপোলির বিপক্ষে হেরে আসর শুরু করেছিলো লিভারপুল। দ্বিতীয় ম্যাচেও হোঁচট খেতে খেতে পার পার পেয়ে গেলো ক্লপের দল।

ঘরের মাঠে নাটকে ভরপুর ম্যাচে আয়াক্সকে ২-১ গোলে হারিয়েছে লিভারপুল। শুরুতে সালাহার গোলে লিড নিয়ে ১০ মিনিটের ব্যবধানে গোল হজম করে হোঁচট খাওয়ার শঙ্কায় পড়ে দলটি। তবে শেষ মুহূর্তে ম্যাটিপের গোলে কোনোমতে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে অলরেডরা।

ঘরের মাঠে পুরো ম্যাচে একক আধিপত্য বিস্তার করে খেলে লিভারপুল। ৫৮ শতাংশ সময় বল নিজেদের পায়ে রেখে প্রতিপক্ষের গোলপোস্টে নেয় মোট দুই ডজন খানেক শট। লক্ষ্যে ছিলো দশটি। তবে গোল এসেছে মাত্র দুটি। অন্যদিকে পুরো ম্যাচে তিনটি শট নেওয়া আয়াক্স লক্ষ্যে রেখে একটি মাত্র। তাতেই বাজিমাত করে দলটি। যদিও শেষ মুহূর্তের গোলে কপাল পুড়ে সফরকারীদের।

ম্যাচের ১৭তম মিনিটে মোহাম্মদ সালাহার গোলের লিড নেয় লিভারপুল। তবে ১০ মিনিট পরেই মোহাম্মদ কুদ্দুসের গোলে ম্যাচে সমতা আনে আয়াক্স।

১-১ গোলে সমতায় শেষ হয় প্রথামর্ধ, বিরতি থেকে ফিরে অলরেডরা মরিয়া হয়ে উঠে গোলের খোঁজে, লিভারপুল কোচ একে একে মাঠে নামান ফিরিমিনো, ডিয়াগো জোটাদের। তবে গোল নামক সোনার হরিণটি মোটেও ধরা দিচ্ছিলো না সালাহ্দের পায়ে।

ম্যাচের নির্ধারিত সময় শেষ হওয়ার এক মিনিট আগে ডিফেন্ডার ম্যাটিপের পা থেকে বল জাল খুঁজে নিলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ক্লপের দল।

দুই ম্যাচে এক জয় ও এক হারে তিন পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপের পয়েন্ট টেবিলে দুইয়ে আছে লিভারপুল, একই পয়েন্এট নিয়ে তিনে আছে আয়াক্স। লিভারপুলের বিপক্ষে জেতা নাপোলি আছে শীর্ষে।


সর্বশেষ খবর পেতে আমাদের Google News ফিডটি ফলো করুন