লা লিগা কিংবা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ স্পেনিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদের জয়রথ ছুটছেই চলছে। গতবারের লা লিগা ও উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জেতা দলটি নতুন মৌসুমে জিতেছে তাদের খেলা সবকটি ম্যাচ।

আজ নিজেদের ঘরের মাঠ সান্তিয়াগো বান্যবুতে জার্মান ক্লাব লিপজিগকে ২-০ গোলে হারিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ।

আজ কোচ আনচেলত্তির দলকে রুখে দেওয়ার সকল প্রকার প্রচেষ্টা চালিয়ে যায় লিপজিগের ফুটবলাররা। তবে শেষের ১০ মিনিটে ফেদে ভালভার্দে ও মার্কো অ্যাসেনসিওর গোলে রিয়াল মাদ্রিদ তাদের শতভাগ জয়ের ধারা অব্যাহত রাখলো।

ম্যাচে বল দখল ও আক্রমনে এগিয়ে থাকলেও রিয়ালের খেলায় ছন্দ ছিলো না। উল্টো ম্যাচের শুরুতে আক্রমনের পরসা সাজিয়ে রিয়ালকে চাপে রাখে লিপজিগ। ইনজুরিতে এই ম্যাচেও ছিলেন না বেনজেমা, তার জায়গায় খেলেছেন রদ্রিগো।

ম্যাচের পঞ্চম মিনিটে ক্রিস্তোফা এনকুনকুর জোরালো শট ঝাপিয়ে পড়ে ফেরান কর্তোয়া। ৩৪তম মিনিটে পাঁ ছোঁয়া দূরত্ব থেকে গোলের সুযোগ হাতছাড়া করেন ক্রিস্তোফা এনকুনকু।

দুই দলের খেলোয়াড়দের ব্যর্থতায় গোলশূন্য বিরতিতে যায় উভয়দল। বিরতি থেকে ফিরে রিয়াল মাদ্রিদ যেন নিজেদের হারিয়ে খুঁজতে লাগলো। মৌসুমের সব ম্যাচ জেতা রিয়ালকে চোখ রাঙ্গাচ্ছিলো পয়েন্ট খোয়ানোর দুশ্চিন্তা।

তবে ম্যাচের শেষ দশ মিনিট দেখস মিললো এক অন্যরকম রিয়ালের। ৮০ মিনিটে ভিনিসিয়াসের বাড়ানো পাস প্রথম ছোঁয়ায় নিয়ন্ত্রণে নিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে একজনকে কাটিয়ে কোনাকুনি শটে বল জালে পাঠিয়ে দলকে এগিয়ে নেন ভালভার্দে। নির্ধারিত সময় শেষ হওয়ার খানিক আগে দুই বদলির কল্যাণে দ্বিতীয় গোল পেয়ে যায় মাদ্রিদ। টনি ক্রুসের পাস থেকে ডি বক্সের বাইরে বল পেয়ে সেখান থেকে জোরালো শটে গোল করেন অ্যাসেনসিও।

দলে জায়গা না পাওয়ার হতাশা ছিলো অ্যাসেনসিওর মনে। তবে এই দিন রিয়ালের জার্সিতে নিজের ৫০তম গোল করে তিনি যে দলে জায়গা পাওয়ার যোগ্য দাবিদার তার জোরালো দাবি জানিয়ে রাখলো।

নতুন মৌসুমে এখন পর্যন্ত আট ম্যাচ খেলে সবকটিতে জিতেছে আনচেলত্তির দল। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে দুই ম্যাচেই জিতে ৬ পয়েন্ট নিয়ে আছে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে।


সর্বশেষ খবর পেতে আমাদের Google News ফিডটি ফলো করুন