ইসরায়েলের চ্যাম্পিয়ন ম্যাকাবি খাইফাকে ৩-১ গোলে হারিয়েছে পিএসজি। যদিও আগে গোল করে লিড নিয়েছিলো ম্যাকাবি খাইফা। তবে পিএসজির আক্রমনভাগের তিন তারকার সাথে শেষ পর্যন্ত পেরে উঠেনি ইসরায়েলের দলটি।

প্রথমে গোল হজমের পর পিএসজির হয়ে গোল শোধ করেন মেসি, সাথে ভাঙ্গেন চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রোনালদোর রেকর্ড, ভাঙ্গেন করিম বেনজেমার রেকর্ডও। এখানেই থামেননি মেসি। এমবাপ্পেকে দিয়ে গোল করান এই আর্জেন্টাইন। এমবাপ্পের গোলে এগিয়ে যাওয়া পিএসজির হয়ে শেষ মুহূর্তে প্রতিপক্ষের কফিনে শেষ পেরেক ঠুকে দেন ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার জুনিয়র।

 

এক গোলে রোনালদো-বেনজেমার রেকর্ড ভাঙ্গলেন মেসি

ম্যাচের মাত্র ২৪তম মিনিটে মেসি-নেইমারদের দলকে স্তব্ধ করে দিয়ে দলকে লিড এনে দেন তিয়ারন চেরি। বাঁধ ভাঙ্গা উল্লাসে মেতে উঠে পুরো স্টেডিয়াম। অবশ্য তাদের এমন আনন্দের যথেষ্ট কারণ আছে চ্যাম্পিয়নস লিগে ২০০২ সালের পর এই গোলটি ছিলো ম্যাকাবি হাইফার প্রথম গোল,তাও পিএসজির মতো দলের বিপক্ষে এগিয়ে।

 

তবে ৩৭তম মিনিটে আর্জেন্টাইন জাদুকর মেসির গোলে পিনপতন নীরবতা নেমে এসে স্টেডিয়ামে। মেসি শুধু গোল করেননি এক গোলে ভেঙ্গেছেন রোনালদো ও বেনজেমার রেকর্ডও। ম্যাচের ৬৯তম মিনিটে এমবাপ্পেকে দিয়ে গোল করান মেসি। ম্যাচের শেষ মুহূর্তে ভেরত্তির পাস থেকে গোল করে ইসরায়েলের দলটির কফিনে শেষ পেরেকটি ঠুকে দেওয়ার কাজ সারেন নেইমার।

 

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে এই প্রথম একই ম্যাচে গোলের দেখা পেলেন পিএসজির আক্রমনভাগের তিন তারকা মেসি,নেইমার ও এমবাপ্পে।

 

২ ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে ‘এইচ’ গ্রুপের শীর্ষে পিএসজি। এই গ্রুপ থেকে অন্য ম্যাচে জুভেন্টাসের মাঠে ২-১ গোলে জিতেছে বেনফিকা। পিএসজির সমান ম্যাচে সমান পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে আছে পর্তুগালের ক্লাবটি। ২ ম্যাচে পয়েন্টহীন জুভেন্টাসের অবস্থান তিনে ও হাইফা আছে চারে।


সর্বশেষ খবর পেতে আমাদের Google News ফিডটি ফলো করুন