টি-টোয়েন্টিতে ডোমিঙ্গকে সরিয়ে তার জায়গায় ব্যাটিং পরামর্শক জেমি সিডন্সকে হেড কোচ করার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন নাজমুল হাসান পাপন। সংবাদ সম্মেলনে বিবিসির এক কর্মকর্তা জানিয়েছিলেন নতুন একজন কোচেরও কোচিং প্যানেলে যোগ দেওয়ার কথা।

আজ বিভিন্ন গণমাধ্যমে শিরোনাম হয়েছিলো সাবেক ভারতীয় ক্রিকেটার ও অষ্টেলিয়ার সাবেক কোচ শ্রীধর শ্রীরামকে বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি দলের হেড কোচের দায়িত্ব দেওয়া হচ্ছে।

সিডন্স নাকি শ্রীরাম কে হচ্ছেন নতুন হেড কোচ এমন প্রশ্নের উত্তর পাওয়া গেলো অবশেষে। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন জানিয়েছেন শ্রীরামকে টি-টোয়েন্টি কোচিং প্যানেলে যুক্ত করছে তারা, তবে হেড কোচ হিসেবে নয়, সাবেক এই অজি কোচকে দায়িত্ব দেওয়া হচ্ছে ‘টেকনিক্যাল কনসালটেন্ট’ পদে।

 

আজ গুলশানে এক সংবাদ সম্মেলনে বিসিবি সভাপতি নিশ্চিত করেন বিষয়টি।

❝শ্রীরামকে আমরা শর্টলিস্ট করেছিলাম, সে ওই লিস্টে ছিল। এবং সে আমাদের এখানে ২১ তারিখ দুপুরবেলা আসার কথা। দায়িত্ব ঠিক না, মানে কোচ হিসেবে আসছে না। সে অবশ্যই হেড কোচ হিসেবে আসছে না। সে আসছে অ্যাজ অ্যা টেকনিক্যাল কনসালট্যান্ট হিসেবে। আসছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত।❞

২০০০ সাল থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত ভারতের জার্সিতে মাত্র আটটি ওয়ানডে ম্যাচ খেললেও কোচ হিসেবে কাজ করেছেন অস্ট্রেলিয়া দলে। তাছাড়াও আইপিএলের দল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু ও পাঞ্জাব কিংসের কোচ ছিলেন শ্রীরাম।

কোচ হিসেবে অভিজ্ঞতা ভালো শ্রীরামের, তাই তাকে নিয়োগ দিয়েছে বিসিবি, পাপান জানান এমনটাই।

❝কতগুলো বিবেচনায় তাকে আনা হয়েছে। যেহেতু আইপিএলের সঙ্গে তাঁর সম্পৃক্ততা আছে। আমরা এমন কাউকে চাচ্ছিলাম যার সঙ্গে টি-টোয়েন্টির সম্পৃক্ততা আছে, অভিজ্ঞতা আছে। আর যেহেতু খেলা অস্ট্রেলিয়ায়, সে অস্ট্রেলিয়ায় অনেক দিন কাজ করেছে। এই দুটি কারণে তাঁকে আমরা বিশ্বকাপ পর্যন্ত নিয়েছি।❞

শ্রীরাম হেড কোচ না হলেও জেমি সিডন্সকে এখনিই হেড কোচ হিসেবে ঘোষণা দিচ্ছে না বিসিবি সভাপতি , ডমিঙ্গোর সাথে বৈঠকের পর এশিয়া কাপে দলের প্রধান কোচের দায়িত্ব কে থাকবেন তা নিশ্চিত করবে বিসিবি।


সর্বশেষ খবর পেতে আমাদের Google News ফিডটি ফলো করুন