ইতিমধ্যে রিয়াল মাদ্রিদের ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার ক্যাসেমিরোর ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে যোগ দেওয়া নিশ্চিত করেছে উভয় ক্লাব। দলের অন্যতম সেরা একজন খেলোয়াড় হারিয়ে বাকরুদ্ধ রিয়াল সমর্থকেরা, সোশ্যাল মিডিয়া ভরপুর তাদের আবেগময়ী বার্তায়। শুধু সমর্থকেরা আবেগময়ী বার্তা দিয়েছেন তা নয়, মাদ্রিদের খেলোয়াড়রাও নাম লিখিয়েছে এই তালিকায়। করিম বেনজেমা, ভিনিসিয়াস জুনিয়ার থেকে শুরু করে ক্রুস, মদ্রিচ সকলে বিদায়ী বার্তা দিয়েছে এই ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডারের প্রতি। আবেগঘন এসব বার্তার ভিড়ে সবচেয়ে আলোচিত হচ্ছে ক্যাসেমিরোর দুই ক্লাব সতীর্থ জার্মান মিডফিল্ডার টনি ক্রুস ও ক্রোশিয়ান মিডফিল্ডার লুকা মদ্রিচের দেওয়া বার্তা দুটি।

টনি ক্রুস, ক্যাসেমিরো ও লুকা মদ্রিচ এই তিন মিডফিল্ডারদের যুগলবন্দীকে পরিচিত ছিলো ‘বারমুডা ট্রায়াঙ্গল’নামে। ক্যাসেমিরোর বিদায়ে ভেঙ্গে গেলো বিখ্যাত সেই “বারমুডা ট্রায়াঙ্গল”।

ক্যাসেমিরোর বিদায়ে হয়তো সবচেয়ে বেশি কষ্ট পেয়েছেন টনি ক্রুস ও লুকা মদ্রিচই। ব্রাজিলিয়ান তারকার প্রতি দুই তারকার চিঠি দুটি দেখলে তা নিশ্চিত হওয়া যায়।

 

বিদায়ী বার্তায় ক্রুস দুজনের খুনসুটির বিষয়টি তুলে ধরেন, শুভ কামনা জানিয়ে লিখেন আলদা দলে খেললেও তাদের বন্ধুত্ব থাকবে অটুট।

টনি ক্রুসের বার্তাঃ

❝প্রিয় ক্যাসে, কোনো পরিস্থিতিতেই তোমার সঙ্গে শান্তিতে থাকা বলতে থাকা অসম্ভব। এমনকি টার্কিশ বাথ নেওয়ার সময়ও না। সেখানেও তুমি থাকা মানে আরেক যন্ত্রণা ; দেখা যায় তুমি কাউকে যেতে বলেছ, গিয়ে সে দেখল বাইক আর ভারোত্তোলনের সরঞ্জাম প্রস্তুত—তোমার নতুন সতীর্থদের সতর্ক করে দেওয়া ভালো। কারণ তোমার সঙ্গে টার্কিশ বাথও জিম হয়ে যায়…শুধু ওঠা–বসা করার সময়ই তুমি কাউকে একটু আরাম করার সুযোগ দাও।’

আমি তোমাকে মিস করব। তুমি উদাহরণ দেওয়ার মতো একজন পেশাদার, শীর্ষ সারির খেলোয়াড়, একজন যোদ্ধা, যে আমাকে অনেক সময়ই অনেক কিছু থেকে বাঁচিয়েছে…তবে এসব ছাপিয়ে তুমি একজন ভালো মানুষ।

আমরা ইতিহাস গড়েছি। আহা! কী দারুণ সময় ছিল!

এখন আমাদের খেলার পথটা আলাদা হয়ে গেলেও বন্ধুত্ব অটুট থাকবে, এটা আমি তোমাকে নিশ্চিত করতে পারি।’

তোমার সর্বাঙ্গীন সফলতা কামনা করি। শিগগিরই দেখা হবে।

সৌভাগ্য কামনায়

তোমারই টনি।❞

 

ক্যাসেমিরোর প্রতি লুকা মদ্রিচের বার্তায়ও ফুটে উঠেছে বন্ধুত্বরে কথা, স্মরণ করেছেন রিয়ালের জার্সিতে ব্রাজিলিয়ান তারকার অভিষেক ম্যাচের কথাও।

লুকা মদ্রিচের বার্তাঃ

❝আমাদের ক্লাবে তোমার অভিষেক ম্যাচটা এখনো মনে আছে আমার…তুমি কী নার্ভাসই না ছিলে! তোমাকে শান্ত থাকতে বলেছিলাম এবং এখন ভাবি, সবকিছু বদলে দিয়ে তোমার কী দারুণ সব অর্জন! সেটা আমারও প্রথম মৌসুম এবং আমরা কেউ–ই জানতাম না, ফুটবল আমাদের জন্য সামনের দিনগুলিতে কী নিয়ে অপেক্ষা করছে।

তুমি একজন সত্যিকারের নেতা হিসেবে নিজেকে তৈরি করেছ। তুমি সবসময়ই সতীর্থ ও রিয়ালের জন্য তা–ই ছিলে। আমরা তোমাকে সব সময় মনে রাখব।’

আমরা একসঙ্গে অনেক কিছু জিতেছি, কিন্তু আমি মনে রাখব সেসব মুহূর্ত যা কেউ খেয়াল করেনি। ভ্যালদেবেবাজে (রিয়ালের অনুশীলনকেন্দ্র) আমাদের প্রতিদিনের অনুশীলন, হাসি–ঠাট্টা এসব। তুমি সব সময়ই ফুরফুরে মেজাজে থাকতে, এমনকি সেটা দুশ্চিন্তার সময়ে, ব্যর্থতার সময়ও।

তোমার সঙ্গে ওই হাসি আনন্দের সময়গুলো আমার মনে প্রশান্তি এনে দিত। পেছনে তাকিয়ে যখন সেই দিনগুলো এবং তোমাকে নিয়ে ভাবি, তখন এটা বুঝি অনেক “নিয়েগা–নিয়েগা” (বান্টু আদিবাসিদের ভাষা, বাংলা অর্থ ভালো–ভালো) হতে যাচ্ছে। তুমি এই বিশ্বের সেরা দেহরক্ষী।

আমি তোমাকে মিস করব। কিন্তু তোমার সেরা সাফল্য কামনা করি। একজন পেশাদার এবং মানুষ হিসেবে তুমি এর যোগ্য।

সবকিছুর জন্য ধন্যবাদ এবং তোমার সৌভাগ্য কামনা করি, বন্ধু!❞

উল্লেখ্য যে, রিয়াল মাদ্রিদের জার্সিতে ক্যাসেমিরো, মদ্রিচ, ক্রুস এক সাথে খেলেছেন নয়টি ফাইনাল যেখানে একটিতেও হারেনি এই বারমুডা ট্রায়াঙ্গাল খ্যাত জুটি।

আগামী সোমবার ক্যাসেমিরোকে অনুষ্ঠানিকভাবে বিদায় দিবে রিয়াল মাদ্রিদ।


সর্বশেষ খবর পেতে আমাদের Google News ফিডটি ফলো করুন