নতুন ক্লাব বার্সেলোনার হয়ে গোলের খাতা খুলতে হয়তো এই দিনটির অপেক্ষায় ছিলেন রবার্ট লেভানদোভস্কি, নিজের ৩৪তম জন্মদিন, গোল করার জন্য এরচেয়ে ভালো উপলক্ষ্য আর কি হতে পারে,?

জন্মদিনে মাঠে নেমেই গোল করতে এই পোলিশ তারকা সময় নেন মাত্র ৪৬ সেকেন্ড। ৬৮তম মিনিটে করেন নিজের দ্বিতীয় গোল। এছাড়াও আনুস ফাতি ও ওসমান দেম্বেলে করেন একটি করে গোল। এতে করে লা লিগার এবারের আসরে নিজেদের প্রথম জয় পেল বার্সেলোনা। সান সেবাস্তিয়ানে রোববার রাতে কাতালনরা জিতল ৪-১ গোলে।

ম্যাচের মাত্র ৪৬তম সেকেন্ডে গোল করে দলকে লিড এনে দেন লেভানডোভস্কি, তবে ঘরের মাঠে ম্যাচে ফিরতে বেশিক্ষণ সময় নেয়নি রিয়াল সোসিয়েদাদ।

ষষ্ঠ মিনিটে ফ্রেংকি ডি ইয়ং মাঝমাঠে বলের নিয়ন্ত্রণ হারালে পেয়ে যায় সোসিয়েদাদ ফুটবলার, সতীর্থের পাস ধরে বক্সে ঢুকে পড়েন আলেক্সান্দার ইসাক। পেছন থেকে ছুটে গিয়ে শেষ মুহূর্তে সুইডিশ ফরোয়ার্ডকে চ্যালেঞ্জ জানান এরিক গার্সিয়া। তবে এই স্প্যানিশ ডিফেন্ডারের পায়ে লেগে বল এগিয়ে আসা বার্সা গোলরক্ষকের মাথার ওপর দিয়ে জাল খুঁজে নিলে ম্যাচে সমতায় ফিরে স্বাগতিকরা।

এরপর আক্রমন পাল্টা আক্রমনে মেতে উঠে দু’দল। তবে দুই দলের গোলরক্ষকদের নৈপূন্যে গোলের দেখা পাচ্ছিলো না কোন দল। বিরতির পর ৫৩তম মিনিটে স্কোর ২-১ করে সফরকারীরা। কিন্তু অফসাইডের ফাঁদে পড়ে বাতিল হয় গোলটি।

৬৪তম মিনিটে একসঙ্গে দুটি পরিবর্তন করেন বার্সেলোনা কোচ জাভি। তরেসের জায়গায় আনুস ফাতি ও বাল্দের বদলি হিসেবে মাঠে নামান রাফিনিয়াকে। এতেই বদলে যায় ম্যাচের গতিপথ। আনুস ফাতির অ্যাসিস্টে ৬৬তম মিনিটে দেম্বেলে ও ৬৮তম মিনিটে লেভানদোভস্কি গোল করে স্কোর লাইন করেন ৩-১।

নেমেই জোড়া গোলে সাহায্য করা ফাতি নিজে জালের ঠিকানা খুঁজে পান ৭৯তম মিনিটে। ২ ম্যাচে একটি করে জয় ও ড্রয়ে ৪ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচ নম্বরে আছে বার্সেলোনা। প্রথম হারের স্বাদ পাওয়া রিয়াল সোসিয়েদাদ ৩ পয়েন্ট নিয়ে ১০ নম্বরে আছে।


সর্বশেষ খবর পেতে আমাদের Google News ফিডটি ফলো করুন