ওয়েস্ট ইন্ডিজের দেশের মাটিতে প্রথম ওয়ানডে সিরিজ জয়ের স্বাদ পেল নিউজিল্যান্ড। এর আগে ১৯৮৫,১৯৯৬,২০০২,২০১২ সালে চারটি ওয়ানডে সিরিজ খেলেও সিরিজ জয়ের উল্লাসে মাততে পারেনি কিউইরা। তবে এবার তারা ঘুরে দাঁড়িয়েছে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ তারা জিতে নিয়েছে ২-১ ব্যবধানে।

নিউজিল্যান্ডের সাথে সিরিজ হেরে যাওয়ায় অনিশ্চয়তার মুখে পড়ে গেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিশ্বকাপ টিকিট, কারণ সুপার লিগ থেকে শীর্ষ আট দল পাবে সরাসরি বিশ্বকাপ খেলার টিকিট। তাই এখন অন্যদের ফলাফলের দিকেই তাকিয়ে থাকতে হবে ক্যারিবীয়দের।

তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডে হেরে আবারো সিরিজ হারের শঙ্কা দেখা দিয়েছিল। দ্বিতীয় ওয়ানডেতে সিরিজ সমতায় আনার পর তৃতীয় ওয়ানডেতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ আগে ব্যাট করে ৩০২ রানের টার্গেট দেয় নিউজিল্যান্ডকে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের পক্ষে সর্বোচ্চ ১০৫ রান করেন কাইল মায়ার্স।

বড় সংগ্রহ তারা করতে নেমে শুরুতেই ফিন অ্যালেনের উইকেট হারিয়ে চাপে পরে নিউজিল্যান্ড। তবে এরপরে গাপটিল ৫৭, কনওয়ে ৫৬, লাথাম ৬৯ ও মিচলের ৬৩ রানের ইনিংসে জয়ের লক্ষ্যে এগোতে থাকে টম লাথামের দল। বাকি কাজটুকু করেন জিমি নিশাম ১১ বলে ৩৪ রান করে। যার ফলে ১৭ বল বাকি থাকতে ৫ উইকেটে ম্যাচ ও সিরিজ জিতে নেয় নিউজিল্যান্ড।

ম্যাচ শেষে ক্যারিবীয় অধিনায়ক নিকোলাস পুরান বলেছেন, ‘এই হার মেনে নেওয়াটা কঠিন। এই উইকেটে তিন শ বেশ ভালো রান। নিউজিল্যান্ড ইনিংসের মাঝামাঝি পর্যন্ত আমরাই এগিয়ে ছিলাম। সত্যি বলতে কী, বোলারদের কাছে এর বেশি আর কী চাইতে পারতাম! কিন্তু নিউজিল্যান্ড খুব ভালো ব্যটিং করেছে।’

ম্যাচ সেরা হয়েছেন টম লাথাম ও

সিরিজ সিরিজ সেরা হয়েছে মিচেল স্যান্টনার।


সর্বশেষ খবর পেতে আমাদের Google News ফিডটি ফলো করুন