ম্যানচেস্টার সিটির শেষ তিন ম্যাচ যেন একই সূত্রে গাঁথা। প্রথমে পিছিয়ে পরা ,এরপর সমতায় ফেরা বা জয় ছিনিয়ে নেওয়া । এটি যেন ম্যানচেস্টার সিটি তাদের খেলার রুটিন বানিয়ে ফেলেছে।

এর আগে বার্সেলোনার সাথে ৩-১ গোলে পিছিয়ে পরে শেষ পর্যন্ত ৩-৩ ব্যবধানে ম্যাচ শেষ করেছিল তারা । এরপর ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগেও নিউক্যাসেল ইউনাইটেড এর সঙ্গেও ৩-১ গোলে পিছিয়ে পড়েও ৩-৩ সমতায় ম্যাচ শেষ করেছিল পেপ গার্দিওয়ালার শিষ্যরা ।

তবে এবারের গল্পটা কিছুটা ভিন্ন, ক্রিস্টাল প্যালেসের সঙ্গে তারা ২-০ গোলে পিছিয়ে পরেও জয় ছিনিয়ে নিয়েছে। ম্যাচের ৫ মিনিটেই জন স্টোনের আত্মঘাতী গোলে এগিয়ে যায় ক্রিস্টাল প্যালেস । আবার ম্যাচের ২১ মিনিটে দারুন হেডের মাধ্যমে গোল করে ক্রিস্টাল প্যালেস কে এগিয়ে দেন সেন্টার ব্যাক জোয়াখিম অ্যান্ডারসন ।

২-০ গোলের ব্যবধানে পিছিয়ে পরে বিরতিতে যাই সিটি ।‌ বিরতির পরের গল্পটা শুধু হলান্ড এবং সিটির । ৫২ মিনিটেই এক গোলের ব্যবধান কমান বের্নার্দো সিলভা । এরপর ৬২, ৭০, ৮১ মিনিটে গোল করে প্রিমিয়ার লীগে নিজের প্রথম হ্যাটট্রিক করেন আর্লিং হলান্ড।

আর্লিং হলান্ডের হ্যাটট্রিক এর ফলে শেষ পর্যন্ত ম্যানসিটি ম্যাচটি জিতে নেয় ৪-২ ব্যবধানে । এই জয়ের ফলে ৪ ম্যাচ থেকে ১০ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে ম্যানচেস্টার সিটি। আর ক্রিস্টাল প্যালেস ৪ ম্যাচে ৪ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকা ১৩ নম্বর স্থানে রয়েছে।

আর্লিং হলান্ড প্রিমিয়ার লিগ মৌসুমে ৪ ম্যাচে ৬ গোল করে শীর্ষ গোলদাতা তালিকায় সবার উপরে অবস্থান করছেন।


সর্বশেষ খবর পেতে আমাদের Google News ফিডটি ফলো করুন