চীনের সাবেক ব্যাডমিন্টন বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ইয়ে ঝাওয়িং অভিযোগ তুলেছে তার নিজ দেশের অলিম্পিক কমিটির বিরুদ্ধে। তার অভিযোগ শুনে থমকে গিয়েছে ক্রীড়া প্রেমীরা।

২০০০ সালে সিডনি অলিম্পিকে মহিলাদের ব্যাডমিন্টন সেমিফাইনাল ম্যাচে ইয়ে ঝাওয়িংয়ের প্রতিপক্ষ ছিল তার নিজ দেশেরই গং ঝিচাও ।

এই ম্যাচটিতেই ইয়ে ঝাওয়িংকে ইচ্ছা করে হেরে যেতে বলা হয়েছিল। কারণ চীনের কর্মকর্তাদের মনে হয়েছিল ইয়ে ঝাওয়িংয়ের চেয়ে গং ঝিচাওয়ের সোনা জেতার সম্ভবনা বেশি। শেষ পর্যন্ত ইয়ে ঝাওয়িং ম্যাচ টি হেরেছিল ৮-১১, ৮-১১ সেটে।

সেবার অলিম্পিকে শেষ পর্যন্ত ব্রোঞ্জ জিতে ছিলেন ঝাওয়িং । এই সম্পর্কে ঝাওয়িং বলেছেন,”তারা শুধু আমাকে ম্যাচ হারতে বলেছিল তেমন নয়। এমনভাবে হারতে বলেছিল যাতে কেউই না বোঝে ম্যাচটি আমি ইচ্ছা করে হেরে গেছি।

তারা আমাকে এটাও বলেছিল ম্যাচটি যেন আমি তৃতীয় সেটে না নিয়ে যাই। দুই সেটেই যাতে ম্যাচটি শেষ হয়ে যায়। এর কারণ ফাইনাল এর আগে যেন ক্লান্ত অনুভব না করে ঝিচাও।

দিনটি আমার কাছে ছিল একেবারে দুঃস্বপ্নের মতো । যেখানে অলিম্পিকে খেলা কোন খেলোয়াড়ের জন্য সবচেয়ে বড় স্বপ্ন। সেখানে আমাকে একটি ম্যাচ ইচ্ছা করে হারতে বলা হয়েছিল। আমি কতটা অসহায় ছিলাম তা বলে বোঝানো সম্ভব নয়।

আমার মনে হচ্ছিল আমি একা ,আর গোটা সিস্টেমটাই আমার বিরুদ্ধে। আমার একার পক্ষে লড়াই করাটা সম্ভব ছিল না। যদি আমি সেমিফাইনাল ম্যাচটি জিতে ফাইনালে ডেনমার্কের ক্যামিলিয়া মার্টিনের কাছে হেরে যেতাম, তা হলে বলা হত আমি প্রতারক। ছিঁড়ে খাওয়া হত আমাকে।’’


সর্বশেষ খবর পেতে আমাদের Google News ফিডটি ফলো করুন