চ্যাম্পিয়ন ট্রফি হাতে বসুন্ধরা কিংসের উল্লাস

স্বাধীনতা কাপের ফাইনালে আবাহনীর কাছে ধরাশায়ী, এরপর ফেডারেশন কাপে অংশ না নেওয়া, দলের দুই গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় তপু বর্মন ও জনাথন ফার্নান্দেজকে ছাড়া লিগে খেলতে নেমে প্রথম ম্যাচেই হার নবাগত স্বাধীনতা ক্রীড়া সংঘের কাছে। সব মিলিয়ে এবারের বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের শুরুটা মোটেও আশানুরূপ ছিলো না বসুন্ধরা কিংসের। স্বাধীনতা কাপ, ফেডারেশন কাপ জেতা আবাহনী শুরু থেকেই লিগ জয়ের জন্য উঠেপড়ে লেগেছিলো। তবে এসব ঘটনা এখন অতীত। আবাহনীর আশায় জল ঢেলে বিপিএলে হ্যাট্রিক চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে বসুন্ধরা কিংস।

আজ শেখ জামালের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিপিএলে এবারের আসর শেষ করলো লিগ চ্যাম্পিয়নরা। নিজেদের ঘরের মাঠ কিংস অ্যারেনায় ম্যাচটি অস্কার ব্রুজনের শিষ্যরা জিতলো ২-১ গোলের ব্যবধানে।

ম্যাচের শুরুতেই অষ্টম মিনিটে মতিন মিয়ার গোলে এগিয়ে যায় বসুন্ধরা কিংস। সুযোগ তৈরি করেও গোলের দেখা না পাওয়ায় ১-০ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় বসুন্ধরা। বিরতি থেকে ফিরে বসুন্ধরা কিংসকে ২-০ গোলের লিড এনে দেন দলটির ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড রবসন রবিনিয়ো। ৬৬তম মিনিটে সোহানের গোলে ব্যবধান কমায় শেখ জামাল। তবে শেষ পর্যন্ত ম্যাচটি বসুন্ধরা কিংস জিতে নেয় ২-১ গোলের ব্যবধানে।

 

কিংস অ্যারেনাকে এবার হোম ভেন্যু করেছিল কিংস ও শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র। শেখ জামালের ‘হোম ম্যাচ’ এ মাঠে হওয়াটা মূলত কিংস ও তাদের সমর্থকদের ঘরের মাঠে শিরোপা উৎসব করতে দেওয়ার জন্য। এবং জিতেই শেষটা রাঙালো বসুন্ধরা কিংস।

 


সর্বশেষ খবর পেতে আমাদের Google News ফিডটি ফলো করুন