ফরাসি সুপার কাপের শিরোপা জিতে নতুন মৌসুম শুরু করলো পিএসজি।

প্রতি মৌসুমের শুরুতে আগেরবারের লিগ ওয়ান ও ফরাসি কাপ বিজয়ীর মধ্যে হয়ে থাকে এক ম্যাচের এই শিরোপা লড়াই। ইসরায়েলের মাঠ ব্লুমফিল্ডে নতেঁকে ৪-০ গোলে হারিয়ে মৌসুমের প্রথম শিরোপা ঘরে তুলে নতুন কোচ গাল্টিয়ারের দল। পিএসজির হয়ে এটি তার প্রথম শিরোপা।

পিএসজি’র হয়ে ফাইনালে জোড়া গোল করেন নেইমার জুনিয়র, বাকি গোল দুটি করেন লিওনেল মেসি ও সার্জিও রামোস।

ম্যাচের ১৪তম মিনিটে অধিনায়ক মার্কিনিয়োসের করা হেড থেকে বল ক্রসবার কাঁপিয়ে ফেরত আসলে গোল বঞ্চিত হয় পিএসজি। তবে গোলের জন্য বেশিক্ষণ অপেক্ষা করতে হয়নি দলটিকে। ২২তম মিনিটে নেইমারের পাস থেকে লিওনেল মেসি গোল করেন মেসির মতো করেই। ডিফেন্ডারদের সাথে প্রতিপক্ষের গোলরক্ষকেও কাটিয়ে বল জালে পাঠান মেসি। ৪০ তম মিনিটে সহজ সুযোগ হাতছাড়া করেন নেইমার। তবে তা নিয়ে খুব বেশি আফসোস করতে হলো না নেইমারের। বিরতিতে যাওয়ার আগে যোগ করা সময়ে ফ্রি-কিক থেকে দূর্দান্ত এক গোল পেয়ে যান এই ব্রাজিলিয়ান তারকা। যদিও ম্যাচের শুরু দিকে বেশ কয়েকটি সুযোগ তৈরি করেছিলো নান্টেস। তবে গোল করতে ব্যর্থ হয় দলটির ফুটবলাররা।

দ্বিতীয়ার্ধে ৫৭তম মিনিটে দারুণ এক ব্যাক হিলে গোল করেন সার্জিও রামোস। ৮১তম মিনিটে ডি-বক্সে নেইমারকে ফাউল করলে নতেঁ ডিফেন্ডার ক্যাস্টিলেট্রোকে লাল কার্ড দেখিয়ে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি৷ ৮২তম মিনিটে পেনাল্টি থেকে নিজের দ্বিতীয় ও দলের চতুর্থ গোলটি করেন নেইমার।

ফরাসি তারকা কিলিয়ান এমবাপ্পে ছিলেন না এই ম্যাচে তবে তার অভাব ম্যাচে ছিটেফোঁটাও পড়তে দেননি নেইমার-মেসিরা।

ফরাসি সুপার কাপের শিরোপা জিতে সাবেক সতীর্থ দানি আলভেজের ৪৩ টি শিরোপা জয়ের রেকর্ডের আরো কাছে পৌঁছে গেলেন মেসি। এখন পর্যন্ত মোট ৪১ টি শিরোপা জিতেছেন এই আর্জেন্টাইন যাদুকর।


সর্বশেষ খবর পেতে আমাদের Google News ফিডটি ফলো করুন