মাত্র ২৩ বছর বয়সে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি বোলার বণে গেলেন রশিদ খান। এশিয়া কাপে বাংলাদেশ বনাম আফগানিস্তান ম্যাচে ২২ রান খরচায় ৩ উইকেট নিয়েছেন রশিদ খা।

৩ উইকেট নেওয়ার সঙ্গেই তিনি নিউজিল্যান্ডের ফাস্ট বোলার টিম সাউদিকে টপকে গেলেন। টিম সাউদি আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ১১৪ উইকেট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে ছিলেন। এবার রশিদ খান মাত্র ৬৮ ম্যাচে ১১৫ উইকেট নিয়ে টিম সাউদিকে পেছনে ফেললেন। এখন শুধু রশিদ খানের উপরে রয়েছে সাকিব আল হাসান।

আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ১০০ উপরে উইকেট শিকার করার অনন্য কীর্তি রয়েছে শুধুমাত্র চারজনের। তারা হলেন সাকিব আল হাসান, রশিদ খান, টিম সাউদি ও লাসিথ মালিঙ্গা। এই লিস্টে বাকি তিন জনের মধ্যে রশিদ খান অনেক কম ম্যাচে খেলেই তাদের রেকর্ডে ভাগ বসিয়েছে।

সাকিব আল হাসান ১০০ ম্যাচ খেলে ১২২ উইকেট নিয়েছে। টিম সাউদি ৯৫ ম্যাচে ১১৪ উইকেট নিয়েছেন। লাসিথ মালিঙ্গাও ৮৫ ম্যাচে ১০৭ উইকেট নিয়েছে অন্যদিকে রশিদ খান ৬৮ ম্যাচেই নিয়েছেন ১১৫ উইকেট। সবার তুলনায় রশিদ খানের গড় ও স্ট্রাইক রেটও কম। তার বোলিং গড় ১৩.৭৩ ও স্ট্রাইক রেট ১৩.৩ ।

বয়সের তুলনায় রশিদ খান অনেকটাই পিছিয়ে আছে। মাত্র ২৩ বছর বয়সেই টি-টোয়েন্টিতে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেটের মালিক তিনি। লাসিথ মালিঙ্গা অনেক আগেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বলেছে। সাকিব ও সাউদির বয়স ৩০ এর উপরে। তাই রশিদ খানের ক্যারিয়ার লম্বা হলে সবাইকে ছাপিয়ে সর্বোচ্চ উইকেটের মালিক তিনিই হবেন তা শুধু সময়ের অপেক্ষা।


সর্বশেষ খবর পেতে আমাদের Google News ফিডটি ফলো করুন