ফুটবল

জিদানকে অপমান করায় চটেছেন কিলিয়ান এমবাপ্পে

desk

৯ জানুয়ারী ২০২৩, বিকাল ৫:৫৩ সময়

[ processed-d7a2ded0-5d8d-497e-b64b-b20b794112e2_TwzSPqSk.jpeg ]

বিশ্বকাপের কয়েক মাস আগে থেকেই শোনা যাচ্ছিল ২০২২ বিশ্বকাপের পর ফ্রান্সের নতুন দায়িত্ব নেবেন জিনেদিন জিদান। দিদিয়ের দেশমের পর তাকেই ফ্রান্সের নতুন কোচ হিসাবে চেয়েছিল ফ্রান্স ফুটবল ফেডারেশন। তবে বিশ্বকাপের পরে সব কিছু ঘুরে যায়।

বিশ্বকাপের আগে ফ্রান্সের পারফরম্যান্স ছিল নিম্নমুখী। দারুন একটি দল নিয়েও নেশনস্ লীগ এবং ইউরো থেকে দ্রুত বিদায় নিতে হয়েছে ফ্রান্সকে। যার ফলে ফ্রান্সের বিশ্বকাপে ভালো পারফরম্যান্স করার ব্যাপারে যথেষ্ট সন্দেহ ছিল সবার। কিন্তু দিদিয়ের দেশমের ফ্রান্স করিম বেনজেমা, পগবা ও কন্তেকে ছাড়াই দলকে নিয়ে গেছে বিশ্বকাপের ফাইনাল পর্যন্ত। সেখানে ফ্রান্সকে হারতে হয়েছে ঠিকই। তবে পারফরম্যান্স নিয়ে প্রশ্ন তোলার জায়গা ছিল না খুব বেশি।

বিশ্বকাপে ভালো পারফরম্যান্স করার পর দিদিয়ের দেশমকে নিয়ে করা আগের সিদ্ধান্তটি পরিবর্তন করতে খুব বেশি একটা সময় নেয়নি ফ্রান্স ফুটবল ফেডারেশন। ২০২২ বিশ্বকাপের পরেই চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়ে যায় দিদিয়ের দেশমের। আবার নতুন চুক্তিতে দিদিয়ের দেশমর সঙ্গে ২০২৬ সাল পর্যন্ত মেয়াদবর্ধিত করেছে ফ্রান্স ফুটবল ফেডারেশন।

এদিকে জিদান ফ্রান্সের কোচ হওয়ার জন্য বিভিন্ন ক্লাব এবং দেশের প্রস্তাব তিনি ফিরিয়ে দিয়েছেন। তার একমাত্র লক্ষ্য ছিল ২০২৬ সালে ফ্রান্সকে বিশ্বকাপে নেতৃত্ব দেওয়া। ব্রাজিলও জিদানকে প্রস্তাবনা দিয়েছিল তাদের নতুন কোচ হওয়ার জন্য। যার ফলে ফ্রান্স ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি নোয়েল লে গ্ৰাতকে একটি সংবাদমাধ্যমে সাংবাদিকরা জিজ্ঞাস করেন, "জিদান কি ব্রাজিলের কোচ? "এই প্রশ্নের জবাবে তিনি উত্তর দিয়েছেন। "এটা আমার দেখার বিষয় না। তার (জিদান)‌ যা ইচ্ছা সে তাই করতে পারে। আমার সঙ্গে তার দেখা হয়নি। এমনকি দিদিয়ের দেশমকে ছাড়ার চিন্তাও কখনো করিনি।

ফ্রান্স ফুটবল ফেডারেশন সভাপতির জিদানকে নিয়ে করা এমন বক্তব্য মোটেও পছন্দ হয়নি ফ্রান্সের বর্তমানে সবচেয়ে বড় তারকা ফুটবলার কিলিয়ান এমবাপ্পের। কিলিয়ান এমবাপ্পে একটি টুইটের মাধ্যমে বলেছেন, "জিদান একজন কিংবদন্তি। তাকে এভাবে অপমান করা মোটেও উচিত হয়নি।"

এর আগেও জিদানকে নিয়ে করা নানান খারাপ মন্তব্যের বিরোধিতা করেছেন এমবাপ্পে। জিদানকে তিনি আইডল হিসাবে দেখেন। জিদানকে নিয়ে করা এমন বক্তব্য মেনে নিতে পারছেন না এমবাপ্পে।

//